Bi’dath-comments-fb

ভাই নামা‌জের প‌রে স‌ম্মি‌লিত মুনাজা‌তে আ‌মি কখ‌নো অংশগ্রহন ক‌রি কখ‌নো ক‌রি না । অংশগ্রহন কর‌লে কি বিদা‌তি বা পাপী হব। আর রুকু পে‌লেই কি রাকাআত পূর্ণ হ‌বে

Qk Nizam and 68 others like this.
Comments
এম. এইচ. সুমন
Jewel Rana
Jewel Rana হে হবেন, বিদাতি আর বিদাতির কোন আমল আল্লাহ কবুল করেনা বুখারি ৩১৮০

Like · Reply · 2 · 23 hrs

Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman কিন্তু মুনাজাত যে বিদআত তার প্রমাণ কী?

Mishkaat U Ahmed
Mishkaat U Ahmed foroz salater por sommiloto munajat krr j kono proman nai setai bidat hwr proman…

Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman তাহলে আমি কিছু দেই?

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Shamsul Islam
Shamsul Islam না তাহলে হবেনা।

Jewel Rana
Jewel Rana চরমুনাইর মরিদ আইছে,

Like · Reply · 1 · 23 hrs
Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman ঠিক কাকে উদ্দেশ্য করে বলা হলো?

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Tafsirul Islam
Tafsirul Islam PAP HOBENA SAWAB HOBE

Md Zahir
Md Zahir Apni protibad na kore tader sate sorik hoccen bidat korte

Like · Reply · 1 · 23 hrs
Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman শুধু বিদাত বলে এড়িয়ে যাওয়া কি ঈমানদারের কাজ? আপনি প্রমাণ দিতে পারবেন?

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Rezaul Alam
Rezaul Alam সম্মিলিত মুনাজাত ‘ বিদা’আত ‘ কারন এটা রসূল(সা:), সাহাবায়ে কেরাম,তাবে- তাবেঈন, করো কাছথেকে পাওয়া যায়নি। এটি ৬০০ হিজরির পর থেকে আবিস্কার করা হয়, যেভাবে আবিস্কার করা হয় মিলাদ প্রথাকেও। তাই এটা ১০০% বিদা’আত ।

Like · Reply · 6 · 23 hrs
Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman আপনি কি নিশ্চিত?

আমি মুসলিম চির রণবীর
M Alauddin Ahamed Sheikh
M Alauddin Ahamed Sheikh ভাইঠিক বলেছেন।কিনতু আমি মিলাদ পড়িনা।কারন এটা নবী করিম ( স) ওচার খলীফা কেউই করেনি। কিনতু আমি মিলাদ না পড়ার কারনে অনেকে আমাকে ভুল ভাবেন।

Like · Reply · 2 · 22 hrs
Rezaul Alam
Rezaul Alam ভাই আপনার ইবাদত,আপনার কুরবানী,আপনার সবকিছু হবে রাসূল(সা:) এর তরিকায়। আর মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের সন্তষ্টি অর্জনের উদ্দেশ্যে। পৃথীবিতে কে ভাল ভাবলো আর কে খারাপ ভাবলো সেটা আপনার ভাবার বিষয় নয়। আল্লাহর সন্তষ্টি অর্জন মানে আখিরাতে কামেয়াপ। ইনশাল্লাহ্।

Like · Reply · 1 · 20 hrs · Edited
Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman আমি মুনাজাতের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করেছিলাম, বিদাত বলাটা যৌক্তিক কিনা

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
 
MD Obydul
MD Obydul দুয়া করা জায়েয, না করলে গুনাহ নেয়, করলে উপকার নিজের ওপরেরো। ফিরকায়ে আহলে হাদিস থেকে সাবধান।

Rezaul Alam
Rezaul Alam জোরে আমিন বললে ইহুদী ও বিধর্মীরা মনো ক্ষুন্ন হয়, আর বর্তমান সময়ের পীরপুজারী ও মাযাহাব পন্থী কথিতো মুসলমান নামক মুসরেক রাও সহী হাদীস আর জোরে আমিন বলা শুনলে মনো ক্ষুন্ন হয়। আহলে হাদীস পন্থিগনকে গালা গালি দের। আহলে হাদীস পন্থিগন কোন পীরপুজারী বা নাম ধারী কোন মাযাহাবী না। আর যদি মাযাহাবী বলেন তাহলে তারা আল কুরআন ও রসূল(সা:) এর সহী হাদীসের অনুসারি, রসূল(সা:) এর মাযাহাবী। জাযাকাল্লাহু খায়রান।

Like · Reply · 2 · 22 hrs
Sogood Islam Syeds
Write a reply…
শাহবাগী মুরগী যোদ্ধা
হুমায়ের জিদান
হুমায়ের জিদান করতে পারবেন।তবে এটা কে আবশ্যকিয় ভাববেন না।তবেই বিদাত হবে।

Like · Reply · 1 · 23 hrs
Shahin Khan
Shahin Khan ফরজ সলাতের পর সস্মিলিত মোনাজাত করা ১০০% বিদআত।

Like · Reply · 8 · 22 hrs
पिस साद्दाम
पिस साद्दाम অবশ্যাই পাপি হবেন, বুখারি, মুসলিম, মিশকাত\ 5571

Like · Reply · 4 · 22 hrs
M Alauddin Ahamed Sheikh
M Alauddin Ahamed Sheikh ভাই আমিও একই সমস্যার ভেতরে আছি।আমি জানি সম্মিলিত মোনাজাত এভাবে করা যায় না।

Like · Reply · 2 · 22 hrs
Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman কেন যায় না?

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Md Kamal Sikdar
Monir Hossain
Monir Hossain Namz er por shommilito monazat ekto shu sposto bidaat, Rasul(swlm) kokhonoi amon ti koren ni ba korte nirdesh den ni. Allah amader shothik ta bojhar o ta mene cholar toufiq daan korun, aameen.

Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman যদি বলি করেছেন?

Monir Hossain
Monir Hossain Reference din plz.

Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman অপেক্ষা করুন, আগে কমেণ্টগুলো পড়ে নেই

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
 
Shamsul Islam
Shamsul Islam ডাঃ জাকির নায়েক যখন চ্যালেঞ্জ করে হিন্দু,খৃষ্টান,ইয়াহুদি,নাস্তিক ও সকল ধর্মের পন্ডিতদের সাথে যে, ইসলামই একমাত্র সঠিক ধর্ম। যখন জাকির নায়েকের লেকচার শুনে অমুসলিমরা দলে দলে ইসলাম গ্রহন করতেছে, তখন আমরা সবাই গর্ব করি। কিন্তু যখন জাকির নায়েক মুসলমানদের ভিতরে শিরক,বিদ’আত,আর নানা রকমের মাযহাব,দলাদলি, মতভেদ তৈরী করে তখনি মুসলমানগন তার বিরুধীতা করে।

Like · Reply · 5 · 21 hrs
Abir Hasan Rubel
Abir Hasan Rubel
Abir Hasan Rubel
Abir Hasan Rubel
Md Shahinur Rahman
Md Shahinur Rahman Bidatt theke bachiye thakun.bidat

Abir Hasan Rubel
Abir Hasan Rubel
মিথ্যে পথের সন্ধানে
মিথ্যে পথের সন্ধানে উক্ত হাদিসের রাবী মুহাম্মাদ বিন মিহসান সম্পর্কে ইয়াহইয়া ইবনু মাঈন তাঁকে মিথ্যুক বলেছেন। ইমাম বুখারী বলেন মুনকারুল হাদিস। আবু হাতীম আর-রাযী তাঁকে মাজহুল ও মিথ্যুক বলেছেন। ইবনু আদী বলেন তিনি একাধিক হাদিস বানোয়াটভাবে বর্ণনা করেছেন। ইবনু হিব্বান বলেন তিনি সিকাহ হাদিসের বিপরীতে হাদিস বানিয়ে বর্ণনা করেন।
হাদিসের মানঃ জাল

Like · Reply · 1 · 20 hrs
Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Md Sobuj
Md Sobuj আসলে এটা আপনার নিয়েতের ব্যাপার যেমন ধরুন কেউ যদি মনে করে নামাজের পর মোনাজাত করা জরুরি তাহলে সেটা বেদাত হবে আর যদি আপনি এটা জানেন যে জরুরি না তাহলে আপনি মোনাজাত নিয়মিত করলেও বেদাত হবে না ৷৷৷ যেকনো আমল বেদাদ তখনি হয় যখন সেটা নিয়ে বাড়াবাড়ি করা হয় বা ইসলামে যেটা ফরজ ওয়াজিব না সেটাকে ঐ স্তরে নিয়ে যাওয়া

Like · Reply · 2 · 20 hrs
Shohel Afrad
Shohel Afrad ★★★ বিদায়াত সব আমল
বরবাদ করে দেয় ★★★

Shohel Afrad's photo.
Like · Reply · 3 · 20 hrs
Mahadi Hasan Rana
Mahadi Hasan Rana আল্লাহর সাথে অংশীদার করার নাম শিরক। যা কি না আল্লাহ মাফ করবে না, আপনার আমার আমল যদি তিল তিল করে আসমান পরিমান ও হয় তাও আপনি আমি জাহান্নামী হব,কারন শিরিক, আবার আপনার আমার পাপ যদি তিল তিল করে আসমান পরিমান হয় এবং আমরা যদি আল্লাহর সাথে কাউকে শরিক না করি তা হলে হয় সাজা দিয়ে বা আল্লাহ মাপ করে দিয়ে জান্নত দিবে। সহি হাদিস। রাসুল সঃ যে ভাবে আমল করেছে এবং আমাদের যে ভাবে করতে বলেছে, তার থেকে বেশি বা নতুন ভাবে আমল করার নাম বিদাআত। আর কেউ যদি এই রুপ আমল করে তার সকল আমল বরবাদ হয়ে যাবে , নবী সঃ এই উম্মত ও হতে পাড়বে না, মানে নবী সঃ সুপারিস তার জন্য হবে না? আমার একটি উদারন আমরা যারা সালাত আদায় করার পর সম্মিলিত ভাবে মুনাজাত করি আর আমিন আমিন বলি তারা কি কখন ভেবে দেখেছি এত মানুষ কার মনে কি আছে না জেনে তার দুয়া কবুল করার জন্য আল্লাহর দরবারে আমিন আমিন বলছি , যদি তার মনে খারাপ কিছু থাকে বা হারাম কিছু পাওয়ার নিয়ত থাকে, আমিন মানে আল্লাহ আপনি কবুল করেন ।

Like · Reply · 1 · 19 hrs
পথভোলা সৈনিক
Jewel Rana
Jewel Rana হবে

Like · Reply · 1 · 19 hrs
নীল প্রজাপতি
নীল প্রজাপতি রাসূল যেটা করেছে সেটা করা সূন্নাত। নাকরা বেদ আত

Like · Reply · 4 · 19 hrs
Sanchay Sjr
Sanchay Sjr বেদাত করা গোমরাহি আর সমসত গোমরাহির পরিনিতি জাহান্নাম

Like · Reply · 3 · 19 hrs
আব্দুল হান্নান
আব্দুল হান্নান মোনাজাতের সাথে নামাজের কোন সম্পর্ক নাই,
মোনাজাত আপনী যে কোন সময় করতে পারবেন,
নামাজের আগে পরে ঘুমের সময় কোন বেদআত নাই,
আল্লাহর কাছে চাওয়া কোন বেদআত না,

Like · Reply · 5 · 19 hrs
আব্দুল হান্নান
আব্দুল হান্নান মোনাজাতের দরন যে কোন ভাবে হাত উঠাইয়া হাত না উঠাইয়া মনে মনে যে কোন ভাবে আল্লাহর কাছে চান,

Like · Reply · 2 · 19 hrs
Jewel Rana
Jewel Rana হে বেদাত, ইসলাম কারো বাপ দাদার সম্পদ নয় যে যার যেভাবে খুশি সে সেভাবে পালন করবে, ইবাদ করতে হলে নবী স অনুমদন থাকতে হবে, তার তরিকায় হতে হবে নিইলে তা বাতিল বিদাত হবে

Like · Reply · 2 · 19 hrs
Md Sujon Taj
Md Sujon Taj obosshoi

Like · Reply · 1 · 19 hrs
Jewel Rana
Jewel Rana রুকো পেল রাকাত পূণ হবেনা,

Like · Reply · 1 · 18 hrs
Md Sany
Md Sany জারা মোনাজাত না নেবে তারা তো মুসলমান না

Like · Reply · 1 · 18 hrs
Abdullah-al Masum
Abdullah-al Masum dolil den plz

মুসলিম
মুসলিম তোমাগো মসজিদের ঈমাম সাহেবকে যাইয়া জিগাও দলিল আছেনি। থাকলে নিয়া আহ। #md sani

Qk Nizam
Qk Nizam দলিল নাই। কারন নামাজ আমাদের মোনাজাত। নামাজ শেষ মোনাজাত শেষ। কারন এই মোনাজাতের কারনে
নবির সুন্নাহ বাতিল হয়েছে। সুন্নাহ হচ্ছে ছোবাহানাল্লা আলহামদুলিল্লাহ আল্লাহু আকবার ৩৩ বার করে

Like · Reply · 1 · 12 hrs
Sogood Islam Syeds
Write a reply…
 
Jewel Rana
Jewel Rana সানি, দলিল

Like · Reply · 3 · 18 hrs
Shohel Afrad
Mobarak Jahan
Mobarak Jahan আমিও ঠিক জানিনা কেউ জানলে দলিল সহ বলে দিলে ভাল হবে

Like · Reply · 3 · 18 hrs
Ismail Hossain Saddam
Ismail Hossain Saddam রুকু পেলে রাকাত পূর্নহবে এটা জানার জন্য মাদ্রাসায় আসেন । কারন FACEBOOK এ বুজানো সম্ভব না ।

Like · Reply · 2 · 18 hrs
Abir Hasan Rubel
Sogood Islam Syeds
Write a reply…
মুসলিম
মুসলিম রুকুর বিষয়টি নিয়ে অনেক ইখতেলাফ আছে . ভাল একজন শাইখ কে জিজ্ঞেস করেন। জাজাকাল্লাহ

Like · Reply · 3 · 17 hrs · Edited
Abir Hasan Rubel
Abir Hasan Rubel
Abir Hasan Rubel
Abir Hasan Rubel
দুরন্ত জুনাইদ.
দুরন্ত জুনাইদ. ***** যে শালা মুনাজাত বাদ দেবে সে কাফের *****

Like · Reply · 1 · 17 hrs
Abir Hasan Rubel
Abir Hasan Rubel
দুরন্ত জুনাইদ.
দুরন্ত জুনাইদ. ***** হা হা হা *****
গালি দেয়া ফাসিক R মুনাজাত ছাড়া কি
***** বুঝে দেখ *****

Solyman Hossain Joni
Solyman Hossain Joni Drear brothar i know the hadis.salat is not related with monajad.monajad na korle namazer kono khoti hobe na.

Qk Nizam
Qk Nizam তুমি খাটি কাফের

Md Imam Mahadi Hasan
Md Imam Mahadi Hasan বাপরে বাপ ফেসবুকে এত আলেম আসলো কোই থেকে,,যে যাকে ইচ্ছা কাফের ফতুয়া দিচ্ছে,,নাউজুবিল্লা,,,

Abu Hurayra Shayad
Abu Hurayra Shayad :দুরন্ত জুনাইদ. মোনাজাতের হুকুম টা মোটেও এমন নয়।।।

Maher Muhammad Abdur Rahman
Maher Muhammad Abdur Rahman অমন নয় বটে, নিষিদ্ধ কি?

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
 
M Biplob M Biplob
M Biplob M Biplob Prothom ta ekhon theke baad din.
R second ta niye ruku na dhorai perfect jeheto sura fatiha pawa jay na. R sura fatiha sara namaj hoy na.
Eta niye Abu dawod er hadis ta ektu problem ase.
Tobe oneke bolesen ruku pele ta rakat bole gonno hobe.

Like · Reply · 2 · 17 hrs
দুরন্ত জুনাইদ.
দুরন্ত জুনাইদ. **** প্রথমটা কাকে বাদ দিতে বলছিস , আমি মুনাজাত না করলে পৃথিবীর কেউ মুনাজাত করবেনা ******

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Jewel Rana
Jewel Rana জনাইদ মুনাফিক কাফের কাকে বলে যানোছ? গালিদেয় মুনাফিক বুখারি ৩৪ গালিদেয় ফাসিক

Like · Reply · 1 · 17 hrs
Md Omar Sany
Md Omar Sany আল্লার রাসূল সা: কোন দিন সলাতের পর সম্মিলিত ভাবে দোয়া করেছেন বলে কোন গ্রহন যোগ্য এবন সহি হাদিস পাওয়া যায়না।সুত্রাং এটা স্পট বিদ’আত।আর দ্বিতীয় টা হচ্ছে যে,আপনি রুকু পেয়েছেন কিন্তু সূরা ফাতেহাতো আর পরতে পারেননি তাই ওই রাকাত আবার পরতে হবে কারন সূরা ফাতেহা ছাড়া রাকাত পূর্ন হয়না।

Like · Reply · 6 · 16 hrs
Tafsirul Islam
Tafsirul Islam দারুন কৌতুক

সত্যসন্ধানী সাকির
Masum Rahman
Masum Rahman Tafsirul Islam tui ki charal??

Qk Nizam
Qk Nizam মণে হয় ভন্ড মোনাই

Like · Reply · 1 · 12 hrs
Tafsirul Islam
Tafsirul Islam ইমামকে রুকুতে পাইলে এই রাকাত আর পড়তে হবেনা* এই রাকাত আবার পড়তে হবে এই ফতোয়া কোথায় পেল গাধার বাচ্চা

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
 
Mohammad Rofiqul Islam
Mohammad Rofiqul Islam সূরা আল ইমরান:103 – আর তোমরা সকলে আল্লাহর রজ্জুকে সুদৃঢ় হস্তে ধারণ কর; পরস্পর বিচ্ছিন্ন হয়ো না। আর তোমরা সে নেয়ামতের কথা স্মরণ কর, যা আল্লাহ তোমাদিগকে দান করেছেন। তোমরা পরস্পর শত্রু ছিলে। অতঃপর আল্লাহ তোমাদের মনে সম্প্রীতি দান করেছেন। ফলে, এখন তোমরা তাঁর অনুগ্রহের কারণে পরস্পর ভাই ভাই হয়েছ। তোমরা এক অগ্নিকুন্ডের পাড়ে অবস্থান করছিলে। অতঃপর তা থেকে তিনি তোমাদেরকে মুক্তি দিয়েছেন। এভাবেই আল্লাহ নিজের নিদর্শনসমুহ প্রকাশ করেন, যাতে তোমরা হেদায়েত প্রাপ্ত হতে পার।

Like · Reply · 3 · 16 hrs
Qk Nizam
Qk Nizam == বিদআত==
(১) নবী (সাঃ) বলেন, “যে ব্যক্তি এমন আমল করবে যার ব্যাপারে আমার শরীতের নির্দেশনা নেই, উহা প্রত্যাখ্যাত।” [বুখারী- ৫৩/৫, হা/২৬৯৭, ইঃফাঃ ২৫১৪, পব:৫৩, আধ্যায়:৫) ;; (মুসলিম- ৩০/৮, হা/ ১৭১৮, ইঃফাঃ ৪৩৪৩, ৪৩৪৪, পব-৩০, অধ্যায়-৮) ;; মেশকাত হা/১৪০, আহমদ- হা/২৬০৯২
(২) অপর হাদিসে রাসুল (সাঃ) বলেন-
“নিঃসন্দেহে সর্বোত্তম কথা হচ্ছে আল্লাহ্‌র কিতাব, সর্বোত্তম পদ্ধতি হচ্ছে রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর পদ্ধতি। আর নিকৃষ্ট কাজ হচ্ছে শরীয়াতে নতুন কিছু সৃষ্টি করা, এবং প্রত্যেক বিদ’আত হচ্ছে ভ্রষ্টতা।
[(মুসলিম- হা/৮৬৭, ইঃফাঃ ১৮৭৫, পব-৮: জুমু-আহ, অধ্যায়-১৩) ;; (মেশকাতঃ ৫ম আধ্যায়, কিতাব ও সুন্নাহকে আকড়ে ধরা, হা/১৪১ )]
(৩) রাসুল (সাঃ) বলেছেন, ” বনী ইসরাঈল ৭২ দলে বিভক্ত হয়েছিল। আমার উম্মত ৭৩ দলে বিভক্ত হবে। ১ দল ব্যতীত সবাই জাহান্নামী হবে। সাহাবায়ে কিরাম বললেন, সেটি কোন দল। তখন রাসুল (সাঃ) বললেনঃ “আজকের দিন আমি ও আমার সাহাবীগন যার উপরে আছি, তার উপরে যারা টিকে থাকবে”
[ তিরমিযী- হা/২৬৪১, অধ্যায় ৩৮:ঈমান, অনুচ্ছেদ১৮: উম্মাতেন অনৈক্য) ::
ইবনু মাজাহ- হা/৩৯৯৩;; আবূ দাউদ- ৪৫৯৬]
(৪) রাসুল (সাঃ) বলেছেন-
“নিকৃষ্ট কাজ বিদআত, প্রত্যেক বিদ’আত হচ্ছে ভ্রষ্টতা, আর ভ্রষ্টতার পরিনাম জাহান্নাম” 🏼
(নাসাঈ- হা/১৫৭৮, পব-১৯, অধ্যায়-২২, নবী’র (সাঃ) খুতবা কিরূপ ছিল)
(৫) তিন ব্যক্তি রাসুল (সাঃ) এর চাইতে বেশী ইবাদত করার শপথ করলে। তখন রাসুল (সাঃ) বললেন “যে আমার সুন্নাহ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিবে সে আমার দলভুক্ত নয়।” [বুখারী- হা/৫০৬৩, ইঃফাঃ হা/৪৬৯৩ :: মুসলিম- ১৪/১ হা/১৪০১]
(৬) রাসুল (সাঃ) বলেছেন-
“কিয়ামত এর দিন নবী (সাঃ) ও বিদআতিদের মাঝে পরদা পরে যাবে। বিদআতি’রা হাউযে কাওছারের পানি পান করা হতে বঞ্চিত হবে” [বুখারী- হা/ ৬৫৮৪, ৭০৫০, ৭০৫১; ইঃফাঃ ৬৫৭৪ ;; (মুসলিম- অধ্যায়- ৪৪/৯, হা/ ২২৯০, ২২৯১) (ইঃফাঃ হা/৫৭৬৮]
(৭) আল্লাহর রাসূল (সাঃ) বলেন- “তোমাদের মাঝে দুটি জিনস ছেড় যাচ্ছি; তা যদি তোমরা শক্তভাবে ধারণ কর, তবে কোন দিন পথভ্রষ্ট হবে না; তা হল- আল্লাহর কিতাব ও আমার সুন্নাহ’’। (মুয়াত্তা মালিক; মেশকাত ১ম হাঃ/ ১১৭)
==> অর্থাৎ কুরআন ও হাদিস আমাদের জন্য আঁকড়ে ধরা একান্ত আবশ্যক।
======================
==> তাই বিদআত থেকে বেঁচে থাকা প্রত্যেক মুসলিমের জন্য অপরিহার্য। আর ঐসব শিরর্ক বিদআত এবং পথভ্রষ্টতা থেকে বাঁচার জন্য আকড়ে ধরুন ও অনুসরন করুন শুধু মাত্র তাই যা আল্লাহ ও তার রাসূল (সাঃ) আমাদেরকে বলেছেন।
” ইলম (দ্বীনের জ্ঞান) অর্জন করা সকল মুসলিম জন্য ফরজ” (ইবনে মাজাহ- হা/২২৪)
“যে ব্যক্তি দ্বীন অর্জনের পথে গমন করে আল্লাহ্‌ তার জান্নাতের রাস্তা সহজ করে দেন।” (মুসলিম- হা/২৬৯৯)
————————————-
আল্লাহ্‌ আমাদেরকে পৃথিবী এবং আখিরাতে সার্বিক কল্যাণ দান করুন।
……..আমীন…..

Like · Reply · 4 · 14 hrs
Qk Nizam
Qk Nizam বিদাতি ব্যক্তির উপর স্বয়ং আল্লাহর অভিশাপ-

রাসুল (সাঃ) বলেন, যে বেক্তি দ্বীনের মধ্যে নতুন কিছু আবিষ্কার করবে বা কোন নবাবিস্কারিকে আশ্রয় দিবে তাঁর উপর আল্লাহ এবং সকল ফেরেশতা ও মানুষের অভিশাপ। (বুখারি, কিতাবুল জিযিয়াহ-৩১৮০)

বিদআত সম্পর্কে মানুষকে সতর্ক করলেই কিছু মানুষ আপত্তি তুলে যে, আমি সলাত আদায় করবো, কুরআন তিলায়ত করবো, তাসবিহ-তাহলিল করবো এটা আবার বিদআত হয় কি করে!!!। তাদেরকে বলবো খুব গভীরভাবে ১ টা বিষয় লক্ষ্য করুণ, মানুষ আল্লাহ তা’লাকে সেজদা করে, এটা মহান আল্লাহর কাছে সবচেয়ে প্রিয় এমনকি রাসুল (সাঃ) বলেছেন, সেযদারত অবস্থায় মানুষ আল্লাহর সবচেয়ে নিকটবর্তী হয়ে যায়। (মুসলিম)
আল্লাহ তা’লার কাছে সেজদা এতো প্রিয় ১টা ইবাদত তাই বলে কি আমরা ১ রাকাতে ২টা সেজদা না করে ১০টা, ২০টা বা ৫০টা সেজদা করলে আল্লাহ তা’লা খুশি হবেন? কখনো নয় বরং এটাই প্রবৃত্তি পুজা এটাই বিদআত অর্থাৎ রাসুল (সাঃ)-এর পদ্ধতি বাদ দিয়ে নিজের মতো মনগড়া ইবাদত করা। এই ধরনের ইবাদতকারিদের জন্যই রয়েছে দুর্ভোগ। তাদের উপর স্বয়ং বিশ্বজাহানের প্রতিপালক আল্লাহর অভিশাপ। সুতরাং রাসুল (সাঃ) যে কাজ করেননি সে কাজ আপনি যদি ভালো মনে করে বা ইবাদত মনে করে করেন সেটাই হবে বিদআত। আপনার চোখে শয়তান কাজটাকে যতই ভালো বলে তুলে ধরুক না কেন, এই কাজটাই আপনাকে জাহান্নামে নিয়ে যাবে। সুতরাং আপনি যে ইবাদতই করেন না কেন তাঁর পিছনে শরীয়তের দলিল থাকতে হবে নইলে ঐ সলাত, ঐ সিয়াম, ঐ তাসবিহ-তাহলিলই হবে আপনার দুর্ভোগের কারণ!

Like · Reply · 5 · 13 hrs
Monir Hossain
Monir Hossain Great.. Masha Allah.See translation

Qk Nizam
Anisur Rahman
Anisur Rahman Allah apnake kollan dan korun, amin

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
 
Syed Nesar Uddin
Syed Nesar Uddin অধিকা;শ আলেমের মতে রুকু পেলে রাকাত হবে।। এটাই বিশুদ্ধ মত।। স ম্নিলিত দুয়া না ক রাই উত্তম, তবে ফ রজ সালাতের প রে একাকী দুয়া ক রা যাবে।।

Like · Reply · 4 · 12 hrs · Edited
Jewel Rana
Jewel Rana রাকাত হবেনা

MD Obydul
MD Obydul রাকাত হবে

Jewel Rana
Jewel Rana দলিল?

Qk Nizam
Qk Nizam ★★★ফরয সালাতের পরে সম্মিলিত মুনাজাত একটি প্রচলিত বিদআত★★★★
আমাদের সমাজে যতগুলি বিদ’আত প্রচলিত আছে, তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ফরয সালাতের পর সম্মিলিত মুনাজাত। এই সম্মিলিত মুনাজাতের দলীল নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে পাওয়া যায় না । কোন কোন বিদ’আত বছরে একবার করা হয় , কোন কোনটি হয়ত মাসে একবার , কোন কোনটি হয়তো সপ্তাহে একবার । কিন্তু সম্মিলিত মুনাজাত এমন এক বিদ’আত যা প্রতিদিন পাঁচবাব করা হয় । সুতরাং এর থেকে দুরে থাকতে হবে ।
হাদীসে বর্ণিত ফরয সালাতের পর পঠিতব্য দুআ ও যিকিরগুলো এককী পড়তে হবে , দলবদ্ধভাবে নয় । কারণ , হাদীসে এ ক্ষেত্রে পঠিতব্য দুআগুলো প্রায়ই সবই এক বচনের শব্দে এসেছে । দুঃখজনক হলেও সত্য যে , ভারত বর্ষের প্রায় সকল মুসলিম জনগণ (আলিম ও সাধারণ) নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কর্তৃক সালাতের পর পঠিতব্য দুআর তালিকাটি আংশিক বা পুরোপুরি বাদ দিয়ে নিজেরাই বিভিন্ন দুআ নির্বাচন ও সংযুক্ত করেছে। এর সাথে আরো যোগ করেছে দলবদ্ধ ও সম্মিলিত রুপ । ফলে সালাতের পরে দুআর নামে সম্মিলিত মুনাজাতের মাধ্যমে অনেকগুলো সুন্নাত উৎখাত হয়েছে । প্রথমতঃ যে সুন্নাতটি উঠেছে সেটা হল , ফরয সালাতের পর যে নির্দিষ্ট কিছু দুআ ও যিকির রয়েছে এটার জ্ঞানই অধিকাংশ লোকের নেই । যার জন্য ওগুলো কন্ঠস্থ করার সুযোগ তাদের হয়নি । ঐ সকল দুআ ও যিকির সম্বলিত হাদীসগুলো পড়ার কিম্বা ইমাম সাহেবের মাধ্যমে শোনার অবকাশ হয়নি বা নেই । এখন আমি যে সকল স্থানে হাত তুলে দোয়া করা যায় তা সহীহ হাদীসের মাধ্যমে তুলে ধরবোঃ
যে সকল স্থানে হাত তুলে দোয়া করা যায়
(১) বৃষ্টি প্রার্থনার জন্যঃ
আনাস ইবনু মালিক (রাঃ) হ’তে বর্ণিত তিনি বলেন , নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর যামানায় এক বছর দুর্ভিক্ষ দেখা দিল । সে সময় একদিন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম খুৎবা প্রদানকালে জনৈক বেদুঈন উঠে দাঁড়াল এবং আরয করল , হে আল্লাহর রাসূল ! বৃষ্টি না হওয়ার কারণে সম্পদ ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে , পরিবার পরিজন অনাহারে মরছে । আপনি আমাদের জন্য দোয়া করুন । অতঃপর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম স্বীয় হস্তদয় উত্তোলন পূর্বক দোয়া করলেন । সে সময় আকাশে কোন মেঘ ছিল না । (রাবী বলেন) আল্লাহর কসম করে বলছি , তিনি হাত না নামাতেই পাহাড়ের মত মেঘের খন্ড এসে একত্র হয়ে গেল এবং তার মিম্বার থেকে নামার সাথে সাথেই ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টি পড়তে লাগল । এভাবে দিনের পর দিন ক্রমাগত পরবর্তি জুম’আ পর্যন্ত হ’তে থাকল । অতঃপর পরবর্তি জুম’আর দিনে সে বেদুঈন অথবা অন্য কেউ দাঁড়িয়ে বলল, হে আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অতি বৃষ্টিতে আমাদের বাড়ীঘর ভেঙ্গে পড়ে যাচ্ছে, ফসল ডুবে যাচ্ছে । অতএব আপনি আল্লাহর নিকট আমাদের জন্য দোয়া করুন । তখন তিনি দু’হাত তুললেন এবং বললেন, ‘হে আল্লাহ ! আমাদের পার্শ্ববর্তি এলাকায় বৃষ্টি দাও , আমাদের এখানে নয় । এ সময় তিনি স্বীয় আঙ্গুলী দ্বারা মেঘের দিকে ইশারা করছিলেন । ফলে সেখান থেকে মেঘ কেটে যাচ্ছিল । ( বুখারী , প্রথম খন্ড , পৃঃ ১২৭ , হা/৯৩৩ জুম’আর সালাত’ অধ্যায়)

Like · Reply · 2 · 12 hrs
Abdullah All Sohag
Abdullah All Sohag ,,,100%Right,,,,,

Qk Nizam
Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Qk Nizam
Qk Nizam একই বিষয় সম্পর্কিত আরও হাদীস দেখুন – বুখারী প্রথম খন্ড , পৃঃ ১৪০ , হা/১০২৯ ‘ইস্তিস্কা’ অধ্যায় ।
বৃখারী , প্রথম খন্ড , পৃঃ ১৩৭ ; মুসলিম , প্রথম খন্ড , পৃঃ ২৯৩-২৯৪ ।
মুসলিম , মিশকাত হা/১৪৯৮ ‘ইস্তিস্কা’ অনুচ্ছেদ ।
বুখারী , প্রথম খন্ড , পৃঃ ১৪০ , হা/১০৩১ ; মিশকাত হা/১৪৯৯।
(২) বৃষ্টি বন্ধের জন্যঃ
উপরে এক নম্বরে আলোচিত দলীল সমূহ ।
(৩) চন্দ্র ও সূর্য গ্রহনের সময়ঃ
আব্দুর রহমান ইবনু সামুরাহ (রাঃ) বলেন , আমি রাসূল সাঃ এর জীবদ্দশায় এক সময় তীর নিক্ষেপ করছিলাম । হঠাৎ দেখি সূর্য গ্রহণ লেগেছে । আমি তীর গুলো নিক্ষেপ করলাম এবং বললাম , আজ সূর্য গ্রহণে রাসূল সাঃ এর অবস্থান লক্ষ্য করব । অতঃপর আমি তাঁর নিকট পৌছলাম । তিনি তখন দু’হাত উঠিয়ে প্রার্থনা করছিলেন এবং তিনি “আল্লাহু আকবার” , “আলহামদু লিল্লাহ” , “লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ” বলছিলেন । শেষ পর্যন্ত সূর্য প্রকাশ হয়ে গেল । অতঃপর তিনি দু’টি সূরা পড়লেন এবং দু’রাকাত সালাত আদায় করলেন । (মুসলিম ১ম খন্ড , পৃঃ ২৯৯ হা/৯১৩ , চন্দ্র ও সূর্য গ্রহণের সালাত অধ্যায়)
৪) উম্মাতের জন্য রাসূল সাঃ এর দোয়াঃ
আব্দুল্লাহ ইবনু আমর ইবনু আস রাঃ বলেন , একদা রাসূল সাঃ সূরা ইবরাহীমের ৩৫ নং আয়াত পাঠ করে দু’হাত উঠিয়ে বলেন , আমার উম্মাত , আমার উম্মাত এবং কাঁদতে থাকেন । তখন আল্লাহ তায়ালা বলেন , হে জিবরীল ! তুমি আমার মুহাম্মাদের নিকট যাও এবং জিজ্ঞেস কর , কেন তিনি কাঁদেন । অতঃপর জিবরীল তাঁর নিকটে আগমন করে কাঁদার কারণ জানতে চাইলেন । তখন রাসূল সাঃ তাঁকে বললেন , আল্লাহ তায়ালা তা অবগত । অতঃপর আল্লাহ তায়ালা জিবরীলকে বললেন , যাও , মুহাম্মাদকে বল যে , আমি তার উপর এবং তার উম্মাতের উপর সন্তুষ্ট আছি ।

Like · Reply · 1 · 12 hrs
Md Hafizur Jasim Mamun
Md Hafizur Jasim Mamun আমি জতটুক জানী রুকু ১ তজবি পরিমান পেলে নামাজ হবে মোনাজাততো খারাপ কিছুনা ৃ

Syed Nesar Uddin
Syed Nesar Uddin অধিকা;শ আলেমের মতে রুকু পেলে রাকাত হবে।। এটাই বিশুদ্ধ মত।। স ম্নিলিত দুয়া না ক রাই উত্তম, তবে ফ রজ সালাতের প রে একাকী দুয়া ক রা যাবে।।

Like · Reply · 1 · 11 hrs
Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Sk Raaja
Sk Raaja হাফিজুর, জসিম, মামুন, ভাই আপনি একাই তিনজন। বললেন, মোনাজাততো খারাপ কিছু না। মানলাম ভাল। কিন্তু জায়গা বেজায়গা না বুঝে চালাতে গেলে ভাল কাজও খারাপ হয়। সালাত আদায়তো খারাপ কিছুনা, সূর্যোদয়ের সময় এই ভাল কাজটা করাই খারাপ। মোনাজাতটা জামাতবদ্ধভাবে বেদাত মানে জাহান্নামে যাবার মত কাম।

Like · Reply · 2 · 11 hrs · Edited
Md Sujon
Md Sujon Bay apne 3ta tacve jodi rukete geye bolar somoy pan tahole apne rakat paycen ar muna jat seta apnar icce

MD Forkan MD Forkan
MD Forkan MD Forkan মোনাজাত বিদায়াত। রুকু রাকাত

KM Kawsar
KM Kawsar মোনাজাত বিদাত বুঝাইলেন কিন্তু বুঝতে পারলাম না,
মোনাজাত কি : দু হাত উঠিয়ে, আল্লাহ্‌র কাছে নিজের দাবিগুলি পেশ করা বা চাওয়া।
এটা আমাদের নবী, রাসূলগন করেছেন।
এখন সমস্যা কি হল,,,,?????????

Md Kasir
Md Kasir Munajat bidat mane apnar jonmo o bidat.

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
তানভীর আহমেদ আহলেহাদীস
তানভীর আহমেদ আহলেহাদীস দুটি প্রশ্নের উত্তরই “হ্যা”

Abu Hurayra Shayad
Abu Hurayra Shayad হ্যা মানে। বিস্তারিত বলবেনন?

Sogood Islam Syeds
Write a reply…
Abu Hurayra Shayad
Abu Hurayra Shayad নামাজের পর মোনাজাত করতেই হবে মনে করে সম্মিলিত মোনাজাত বেদয়াত। রুকু পেলে রাকাত পুর্ন হবে।

আব্দুল হান্নান
আব্দুল হান্নান কখনো কখনো সম্মেলিত করা যায় এটাকে বেতআদ বলা জাবেনা,

ঝিনুকের ভিতর মুক্তা
ঝিনুকের ভিতর মুক্তা ফরজ নামাজের পর সম্মিলিত ভাবে দোয়া পড়াকে যদি আবশ্যক মনে করা হয় তাহলে বিদায়াত কিন্তু আমাদের সমাজে আবশ্যক মনে করা হয় না! দেখেননা কেহ যদি নাজায পড়ে চলে যায় তাকে বাদ্য করা হয় না! আসল কথা হলো তুমি আহলে হাদীসত শুধু হাদীসটা বুঝলা মর্ম বুঝলা না

1 Reply
Sk Raaja
Sk Raaja ঝিনুক, প্রত্যেক ফরয সালাত পর হাত তুলে জামায়াতে দোয়া করা সকল বিদয়াতের মধ্য সবচেয়ে বেশি করা হয় এমন একটি বিদয়াত। এই জামায়াতি মোনাজাত রাসুল সাঃ জীবণে একবারও করেননি। আপনি জরুরী ভেবে করুন আর না করুন রাসুল সাঃ যা আদৌ করলেন না তা করার এত আগ্রহ কেন আপনার। আপনি সাহি হাদিস থেকে একটি দলিল দিন তো দেখি জায়েজ কিভাবে হয়। আপনার বুযুর্গ হুজুরেরা অনেক বানোয়াট ইবাদাতকে জায়েজ মনে করেন। কারণ, তারা মনে করেন বড় হুজুর যখন জায়েজ বলছেন তখন জায়েজ। দলিল হুজুরের মুখ পর্যন্তই, হাদিসে পাওয়া যাবে না। আহলে হাদিসরা কোন হুজুরের চেহারা দেখেই তাকে বুযুর্গ মনে করেনা। দেখে তার বিশুদ্ধ ইলম ও আমল।

Like · Reply · 2 · 1 hr · Edited

Rezaul Alam
Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s